সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২ ৩:২৬ অপরাহ্ণ || ডেইলিলাইভনিউজ২৪.কম

২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রতন গ্রুপের সাথে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী ও সহযোগী সংগঠনের সাথে সংঘর্ষ

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামীলীগ শাহাবাগ থানা ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রতনের আধিপত্ত বিস্তার কেন্দ্র করে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ দলীয় কার্যালয়ের সামনে ১২ই আগস্ট, ২০২০ দুপুর ১২টার সময় ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের উপরে হামলা চালানোর চেষ্টা করে কাউন্সিলর রতনের সমর্থকবৃন্দ । এক‌পর্যায়ে ২০নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা হামলার প্রতিবাদ করলে ২পক্ষের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অর্ধশতাধিক পুলিশ লাঠি চার্জ করে উভর পক্ষকে স্থান ত্যাগ করতে বাধ্য করেন।

পরবর্তীতে, পরিবেশ শান্ত রাখার জন্য ২৩বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এর সামনে কাটা তারের বেড়া দিয়ে মেইন গেইটের দুপাশের রাস্তা বন্ধ করে দেন এবং বহিরাগতদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেন প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তা। পরিস্থিতি এখনো থমথমে পরিবেশ বিরাজমান। উভয় পক্ষের মধ্যে আবারও সংঘর্ষের আশংকা করছে স্থানীয় ও দলীয় নেতাকর্মীরা।

এব্যপারে, হাই কমান্ডের হস্তক্ষেপ কামনা করছে দলীয় নেতাকর্মী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এই ঘটনার বিষয়ে নাম বলতে অনিচ্ছুক ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা জানান, কাউন্সিলর রতনের ক্ষমতার দাপট খাটিয়েসংগঠনের ভিতরে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করে। ইতিপূর্বে ১৯ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ মহানগর আওয়ামীলীগের অফিসে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতিতে চেয়ার ভাংচুরসহ দলীয় নেতাকর্মীদের উপরে অতর্কিত হামলা চালায়।

এর আগেও ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বেশ কয়েকবার দলীয় নেতাকর্মীদের উপরে হামলা চালিয়েছে রতন ও রতন বাহিনীর লোকজন। প্রতিটি সংগঠনের গ্রুপিংয়ের মেইন হতা কাউন্সিলর রতন প্রতিদিন তার ব্যক্তিগত বলাই সৃষ্টি করার জন্য কিছু সংখ্যক বহিরাগত লোক দিয়ে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে ২০নং ওয়ার্ডে। এই বিষয়ে প্রতিবাদ করলে দলীয় নেতাকর্মীদের উপরে ফুসে উঠে কাউন্সিলর রতন ও তার বাহিনী। কাউন্সিলর রতনের বিষয়ে এর আগেও দলীয় হাই কমান্ড বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে অভিযোগ করলেও তার কোন প্রতিকার পায়নি আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।

১৫ই আগস্ট উপলক্ষে ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দলীয় প্যান্ডেল সাজাতে কাজ করছিল, এমতবস্থায় তাদের উপর অতর্কিত হামলা হয়। তখন বিক্ষিপ্ত নেতাকর্মীরা বলেন, আমরা এতদিন মুখ বন্ধ করে অনেককিছু সহ্য করেছি আর নয়। এখন থেকে কাউন্সিলর রতনের সকল অন্যায় ও অত্যাচারের প্রতিবাদ আমরা রাজপথেই করবো। আজ যেমন আমরা প্রতিবাদ করে তাদেরকে পিছু হাটতে বাধ্য করেছি ঠিক তেমনি আগামীতেও ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী আমরা সকলে ঐক্যবদ্ধ থেকে শত্রুদেরকে দমন করবো।

সদ্য স্থগিত যুবলীগৈর ২০ নং ওয়ার্ড কমিটির নেতা-কর্মীদেরও এই সংঘর্ষে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। এই বিষয়ে কাউন্সিলর রতনের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তার সাথে কথা বলা যায়নি।

-নাজনীন রহমান

Comments

comments

সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী আর নেই

আকবর আলি খান আর নেই

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ আর নেই

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!