অক্টোবর ৬, ২০২২ ৩:২৩ পূর্বাহ্ণ || ডেইলিলাইভনিউজ২৪.কম

খোকনের বাড়ি ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীদের

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) বর্তমান মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসকে নিয়ে বিভ্রান্তকর বক্তব্য দেওয়ায় সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বাড়ি ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীরা। রবিবার (১০ জানুয়ারি) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনের সামনে সাধারণ আইনজীবীদের ব্যানারে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় বক্তারা এই  হুঁশিয়ারি দেন।

সাধারণ আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট ড. মো. মমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী বলেন, ‘সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন যে কিনা ডেঙ্গু-জলাবদ্ধতা নিরসনে ব্যর্থ, দুর্নীতিবাজ, শত শত কোটি টাকার দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত, রাস্তা-ঘাট উন্নয়নে ব্যর্থ হয়েছেন। সেই ব্যর্থ মেয়রের  বিরুদ্ধে আজকের এই প্রতিবাদ সভা।

তিনি বলেন,  ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, যে কিনা আমাদের দেশের গণমানুষের নন্দিত নেতা। সেই নেতাকে নিয়ে তিনি (সাঈদ খোকন) কিছু বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছেন। তাই আমরা সাঈদ খোকনের বিচার চাই। আমরা সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলা করবো। রাজনৈতিকভাবে তাকে প্রতিহত করবো।’

অ্যাডভোকেট মেহেদী বলেন, ‘সাঈদ খোকনের মতো কুলাঙ্গারদের জায়গা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে হতে পারে না। আমরা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ থেকে তার বহিষ্কারের জোর দাবি জানাচ্ছি। আমাদের সর্বস্তরের আইনজীবীদের একটাই দাবি— প্রধানমন্ত্রী, আপনি সাঈদ খোকনকে দল থেকে বহিষ্কার করুন।’

সভায় উপস্থিত বক্তারা এসময় বলেন,সাঈদ খোকন একজন ব্যর্থ মেয়র হয়েও আধুনিক ঢাকার স্বপ্নদ্রষ্টা ফজলে নূর তাপসকে নিয়ে মিথ্যাচার শুরু করেছেন। তিনি ব্যারিস্টার তাপস সম্পর্কে মিথ্যা বক্তব্য দিচ্ছেন। তার এমন বক্তব্যের কারণে আমরা তার বাড়ি ঘেড়াও করবো। একজন যোগ্য বাবার সন্তান হয়েও তার বক্তব্য গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি একজন যোগ্য বাবার উত্তরসূরী হয়েও মেয়র নির্বাচনে নমিনেশনের জন্য ঢাকাবাসীর সামনে  কান্নাকাটি করছিলেন। যোগ্যতার ভিত্তিতে নয়, আবেগের ভিত্তিতে তিনি নমিনেশন ভিক্ষা চেয়েছিলেন। উনার কোনও লজ্জাই নেই। কেন না, মেয়র থাকা অবস্থায়ও তিনি আমাদের প্রায় গ্রামে পাঠিয়ে দিচ্ছিলেন। মূলত তার (সাঈদ খোকন) বিরুদ্ধে যে তদন্ত চলছে, সেখান থেকে বাঁচার জন্যই তিনি ব্যারিস্টার তাপস সম্পর্কে বিভ্রান্তকর বক্তব্য দিচ্ছেন। আমরা তার বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন— বাংলাদেশ আইন সমিতির সভাপতি ব্যারিস্টার সাজ্জাদ হোসেন,সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু, আওয়ামী লীগের আইন উপ-কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার শেখ ওবায়েদ ও আব্দুল্লাহ আল হারুন রাসেল, মোহাম্মদ বাকের উদ্দিন ভূইয়া,মফিজ উদ্দিন,সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হাসিনা মমতাজ,তাসনিম সিদ্দিকী লিনা,শামীম সরদার,মো. মশিউর রহমান,হুমায়ুন কবির, পারভীন আক্তার, ঢাকা দক্ষিণের আওয়ামী আইন বিষয়ক উপদেষ্টা জগলুল কবির, আবুল কালাম আজাদ, শেখ মোহাম্মদ মাজু, মো. ফরাজি, আব্দুর রাজ্জাক রাজু,ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ,সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আব্বাস উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন, আব্দুর রাজ্জাক, নুর এ আলম উজ্জ্বল, এবিএম শাহজাহান আকন্দ মাসুম প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, রাজধানীর ফুলবাড়িয়া মার্কেট থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অভিযান পরিচালনা নিয়ে উচ্ছেদকারীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। তার সেই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীরা প্রতিবাদ সভা করেন।

Comments

comments

সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী আর নেই

আকবর আলি খান আর নেই

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ আর নেই

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!