সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২ ১০:৩০ অপরাহ্ণ || ডেইলিলাইভনিউজ২৪.কম

“অদ্ভুত উঠের পিঠে চলছে স্বদেশ”

ক্ষমতার দাপটে প্রিয় স্বদেশে বেপরোয়া ভাবে চলছে ,গণধর্ষণ, নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন। ক্রস ফায়ারে “সেনা বাহিনীর “ অফিসার খুন, ভোটের নামে প্রহসন “মীড নাইট ভোট”, অর্থের জন্য পুলিশী নির্যাতনে রায়হানের মত নিষ্পাপ ছেলের নির্মম খুন, মহিলা TNO কে রক্তাক্ত জখম। সর্বশেষ “নৌ বাহিনীর “অফিসার ল্যাফটেন্যান্ট ওয়াসিমকে “এমপি হাজী সেলিমের” ছেলে ঢাকার ওয়ার্ড “কমিশনার ইরফান” তার ড্রইভার ও দেহ রক্ষীসহ সহ ঢাকার রাজপথে প্রকাশ্য দিবালোকে খুনের উদ্দেশ্যে নগ্ন হামলা করে “দু’টি দাঁত “ফেলে দেওয়া তার সাথে থাকা তার স্ত্রীকে ও নিলজ্জ ভাবে কিল-ঘুষি মারা ক্ষমতার দাপটের নগ্ন বহিঃপ্রকাশ ।

নৌ বাহিনীর অফিসার নিউ মার্কেট থেক বই কিনে বউ কে নিয়ে মোটর সাইকেলে চড়ে বাসায় যাচ্ছিল- ল্যাবএইডের কাছে রাস্তায় এমপি হাজী সেলিমের গাড়ি তার মোটর সাইকেল কে ধাক্কা মারে। না থেমে গাড়ীটি চলে যাচ্ছিল। সে মোটর সাইকেল থেকে নেমে নিজেকে নৌ বাহিনীর অফিসার পরিচয় দিয়ে শুধু জিজ্ঞেস করছিল, আপনার গাড়ী কেন আমার মোটর সাইকেল কে ধাক্কা মেরেছে। এক জন নাগরিক হিসাবে জিজ্ঞেস করার অধিকার নিশ্চয়ই তার আছে। জিজ্ঞেস করার অপরাধে এমপি হাজী সেলিমের ছেলে ঢাকার ওয়ার্ড কমিশনর “ইফরান “প্রচন্ড ক্ষমতার দাপটে” গাড়ী থেকে নেমে তার ড্রাইভার ও দেহ রক্ষীসহ নৌ বাহিনীর অফিসার কে মেরে রক্তাক্ত করে তার দু’টি দাঁত ফেলে দেয় এবং তার স্ত্রীকে ও জখম করে।

এই রক্তাক্ত দৃশ্য ধারণ করে কয়েক জন পথচারী সোশ্যল মিডিয়ায় প্রকাশ করার সাথে সাথে সব মহলে তোলপাড় শুরু হয়। ঘৃণা ও ধীক্কার জানিয়ে বিচার দাবী করে প্রতিবাদের ঝড় উঠে দেশব্যাপী। সরকার নিরোপায় হয়ে ইরফান, তার দেহ রক্ষী ও ড্রইভারকে তাৎণিকভাবে গ্রেফতার করে এবং র্র্যাব তাদেরকে মদ পান ও অবৈধ ওয়াকিটকি রাখার দায়ে এক বছরের সাজা দেয়। নিঃসন্দেহে RAB এর তাৎক্ষনিক এই সিদ্ধান্ত ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য, মানুষের প্রত্যাশা ভবিষ্যতেও RAB সাধারন মানুষের বেলাতে ও অনুরুপ দৃষ্টান্ত স্হাপন করেবে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়, বিদেশী পিস্তল, হ্যান্ডকাপ, ৩৮ টি ওয়াকিটকি, বিদেশী মদ, ইয়াবা, ড্রোন, এবং মৃত মানুষের হাঁড়। আবিষ্কার করা হয় একটি টর্চার সেল, যেখানে মানুষকে ধরে এনে গুম-খুন ও চাঁদার জন্য টর্চার করা হতো।

RAB এর অভিযানে এই প্রথম শুনলাম “মরা মানুষের হাড়, উদ্ধার করতে। এই ঢাকা শহরে নিকট অতীতে, ওয়ার্ড কমিশনার কায়ূম, ইলিয়াছ আলীসহ বহু মানুষ গুম ও খুন হয়েছেন । এখন দেখার বিষয় RAB এর তদন্তে কি বেরিয়ে আসে ? এই হাড় কার ? আমরা অপেক্ষায় থাকলাম। খুনি খুন করার আগে বা পরে ভুল করে খুনের পদচিহ্ন রেখে যায়, এই হাড় হয়তো বা ঐ রকম একটা আলামত। নিকট অতীতে ঢাকায় নদীতে অজ্ঞাত নামা একটি লাশ ভাসতে দেখেছে পুলিশ , পাশে এক টুকরা সাদা কাগজে একটা ফোন নাম্বার ও ভাসতে ছিল, ঐ ফোন নাম্বারের সূত্রধরে পুলিশ লাশের পরিচয় এবং খনিদের ও ধরতে সক্ষম হয়েছিল।

আমাদের বিশ্বাস আমাদের পুলীশ ও RAB এই হাড়ের সূত্রধরে মূল রহস্য উদঘাটনে সক্ষম হবে। একজন সাধারন মানুষ হিসাবে আমাদের প্রত্যাশা আপনারা যে দলই ক্ষমতায় থাকেন আমাদের আপত্তি নাই, তবে শুধু ক্ষমতার জন্য যেন কোন মায়ের সন্তান গুম না হয়, হতে পারে সে আপনার প্রতিপক্ষ। কারন একটি গুম বা খুনের সাথে একটি পরিবার জড়িত, অনেক গুলো প্রাণ জড়িত, একটা মানুষের সাথে অনক গুলো মানুষকে বা তাদের স্বপ্ন কে এক সাথে খুন করা হয়। ইফরান সেলিম নিজে কমিশনার, বাপ হাজী সেলিম এমপি, শ্বশুর একরাম চৌধুরী নোয়াখালী সদরের এমপি, শাশুড়ী কবিরহাট উপজেলার চেয়ারম্যন । শুধু ক্ষমতার দম্ভে নিজেও শেষ হলো, এক সাথে অনেক গুলো সম্ভাবনাময় পরিবারকেও শেষ করলো।

দেশে আইনের শাসন এবং গণতন্ত্র না থাকার কারনে যা হওয়ার তাই হচ্ছে। আইনের শাসন ও গনতন্ত্র একটি দেশের শান্তি ও স্হীতিশীলতার পূর্বশর্ত। আওয়ামীলীগের মত একটি বৃহৎ গণতান্ত্রিক দলের ইফরানের মত অপরাধীকে তাৎক্ষণিক ভাবে সাজা দেওয়ার দৃষ্টান্ত যেমন আছে, আবার লক্ষীপুরের তাহেরের ছেলে খুনের আসামীকে রাষ্ট্রপতির বিশেষ ক্ষমায় সাজা মওকুপের দৃষ্টান্ত ও আছে। তাই মানুষ কোন রাজনৈতিক দলের প্রতি পুরোপুরি আশাবাদী হয়ে উঠতে পারে না। মুক্তিযাদ্ধের মাধ্যমে অর্জন আমাদের এই বাংলাদেশ । আমরা কি আবার বুক উঁচু করে বলতে পারবো, রবীন্দ্রনাথের সোনার বাংলা, নজরুলের বাংলাদেশ , জীবনান্দের রুপসী বাংলা এই তো আমার বাংলাদেশ । রবীন্দ্রনাথের বাংলায় কেহ গণধর্ষণের শিকার হবে না, নারীকে বিবস্ত্র করবেনা, নজরুলের বাংলায় মানুষ নিরাপদে রাতে ঘুমাতে পারবে, কেউ গুম করবে না, রাস্তায় নিরাপদে চলতে পারবে, কেউ খুন করবে না। জীবনানন্দের রুপসী বাংলায় আমার ভোট আমি দিব, দিনে দিব, কেউ রাতে দেবে না।

-আবদুর রহিম বাহার, মন্ট্রিয়ল , টিএমআর,কানাডা

Comments

comments

সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী আর নেই

আকবর আলি খান আর নেই

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ আর নেই

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!