জুন ১০, ২০২৩ ৩:৩৮ পূর্বাহ্ণ || ডেইলিলাইভনিউজ২৪.কম

বন্ধ হচ্ছে করোনা লাইভ বুলেটিন

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে করোনা সম্পর্কিত নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিন পরিবেশনা। ১১ আগস্ট পর আর নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিন প্রচারিত হবে না।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এখন থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে করোনা সম্পর্কিত সব তথ্য জানিয়ে দেয়া হবে। কোনো বিষয়ে অস্পষ্টতা থাকলে অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানাসহ আরও একজন অতিরিক্ত মহাপরিচালকের সাথে কথা বলে নিতে পারবেন। তবে স্বাস্থ্য বুলেটিন একেবারেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বিষয়টি এমন নয়, ভবিষ্যতে প্রয়োজন সাপেক্ষে হয়তো আবারও স্বাস্থ্য বুলেটিন প্রচারিত হবে।

হঠাৎ করে কেন স্বাস্থ্য বুলেটিন বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, গত কয়েক মাস ধরে একটানা হেলথ বুলেটিন প্রচার করতে গিয়ে অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এক প্রকার অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃতের খবর পড়তে পড়তে তার ওপর এক ধরনের মানসিক চাপ তৈরি হচ্ছে। তাছাড়া তিনি শারীরিকভাবেও কিছুটা অসুস্থতা বোধ করছেন। সার্বিক বিবেচনায় স্বাস্থ্য বুলেটিন প্রচার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, তার বিকল্প কর্মকর্তা দিয়ে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিন প্রচারণা চালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা অনেক দিন ধরে স্বাস্থ্য বুলেটিন পড়তে পড়তে যেমন অভিজ্ঞ হয়ে গেছেন অন্যরা সেভাবে হয়তো পারবেন না বা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন না এমনটা ভেবেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার কাছে জানতে চাইলে তিনি সরাসরি স্বাস্থ্য বুলেটিন বন্ধ হয়ে যাওয়ার বিষয়টি স্বীকার বা অস্বীকার না করে বলেন, আগামীকাল তো আসুক। এর মধ্যে কী সিদ্ধান্ত হয় জানতে পারবেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় শেষ স্বাস্থ্য বুলেটিন পরিবেশন করা হবে অনলাইনে। বুধবার থেকে গণমাধ্যমের কাছে প্রেস রিলিজ আকারে করোনা বিষয়ক আপডেট পাঠানো হবে।

গত ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে করোনাভাইরাস নিয়ে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) ব্রিফিং শুরু করে। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা ওই সময় ব্রিফ করতেন।

দেশে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর আইইডিসিআরের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদফতরও সরাসরি ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়। মার্চের শেষ দিকে ডা. ফ্লোরার পরিবর্তে নিয়মিত ব্রিফিং পরিচালনা করতে করেন অধিদফতরের এমআইএস বিভাগের পরিচালক ডা. হাবিবুর রহমান। এরপর স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনায় নিয়ে অনলাইনে ব্রিফিংয়ের পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। ওই সময় সাংবাদিকরা জুম প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে ব্রিফিংয়ে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেতেন।

এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসে সাংবাদিকদের যুক্ত হওয়ার পর্বটি বাদ দিয়ে ‘ব্রিফিং’কে ‘বুলেটিন’ আকারে উপস্থাপন করতে শুরু করে অধিদফতর। স্বাস্থ্য বুলেটিনে নিয়মিতভাবে তথ্য উপস্থাপন করতেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

Comments

comments

আগামী নির্বাচনটা একটা চ্যালেঞ্জ : প্রধানমন্ত্রী

ভিসা পাননি ৪৪ হাজার হজযাত্রী

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় কয়েকজন বাংলাদেশি আহত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!