জানুয়ারি ২৩, ২০২৩ ৩:২৭ অপরাহ্ণ || ডেইলিলাইভনিউজ২৪.কম

‘কমান্ডো’ ছবি ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ

টিজারেই বিতর্ক তৈরি করেছে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘কমান্ডো’। শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত এই ছবিতে ইসলামকে অবমাননা করা হয়েছে বলে লিখিত অভিযোগ তুলেছেন মাওলানা আব্দুল্লাহ হাই সাইফুল্লাহ।

টিজার থেকে কয়েকটি ছবির স্ক্রিনশট নিয়ে তিনি ‘কালেমা’র ব্যবহারকে জঙ্গিবাদের সিম্বল হিসেবে টিজারে যে দেখানো হয়েছে, সেটা তুলে ধরেছেন।

দুনিয়াব্যাপী ইসলাম নিয়ে যে বহু পর্যায়ের ষড়যন্ত্র চলছে, এই সিনেমা তারই অংশ বলে মনে করছেন মাওলানা সাইফুল্লাহ।

নিজের ফেসবুক পেজে তিনি লিখেছেন, ‘সিনেমা দেখি না, খবরও রাখি না; কিন্তু অনলাইন দুনিয়ায় যেহেতু আছি, সিনেমার টিজারের স্ক্রিনশট দেখে কপাল কুঁচকে গেল। দুনিয়াব্যাপী ইসলাম নিয়ে যে বহু পর্যায়ের ষড়যন্ত্র চলছে, এই সিনেমা তারই অংশ বলে মনে হচ্ছে। ইসলাম আর মুসলমানদের নানা কৌশলে এত দিন দাড়ি, টুপি, জুব্বা, রুমাল, সুরমাকে রাজাকার, বদমায়েশ, চরিত্রহীনদের পোশাক বানিয়ে অপমান করেছে ভারত ও এ দেশের মুভি মেকাররা। এবার যৌথ উদ্যোগ নিয়েছে! নতুন সংযুক্তি, চরিত্র নয় সাবজেক্টই হবে সেটি! কৌশলে বিষয়টিই বাংলা সিনেমার সাবজেক্ট হচ্ছে! মুভি বিশ্বমানে নিয়ে যাওয়া বলে কথা!’

ছবি: ফেসবুক

দুটি ছবি পাশাপাশি পোস্ট করে মাওলানা সাইফুল্লাহ লিখেছেন, ‘১ম ছবিটি দেখুন। কালেমা খচিত পতাকা, পতাকার নিচের অংশে AK-47-এর সিম্বল । পতাকার পেছন থেকে অস্ত্র হাতে বেরিয়ে আসছে কথিত সন্ত্রাসীরা- দ্বিতীয় ছবিটিতে দেখুন। চারদিকে আরবি লেখা। টিজারের এই অংশে দেখানো হচ্ছে কথিত সন্ত্রাসীরা সুন্নতি পোশাক পরে ‘নারায়ে তাকবির’, ‘আল্লাহু আকবার’ স্লোগান দিচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘কালেমাধারীদের পরাজিত করার জন্য ‘নায়ক দেব’ যুদ্ধ করে যাবে এই সিনেমাতে। এই মুভিতে দেখাবে ইসলামী জঙ্গিবাদ দমনে নায়ক দেব এসে হাজির হয়েছে। আর জঙ্গিদের সিম্বল হিসেবে কালিমা খচিত পতাকা ব্যবহার করা হয়েছে। এখানে সুস্পষ্টভাবে ইসলামকে ডিমোনাইজ করা হচ্ছে। ভিলেন বানিয়েছে ইসলামকে। যা ইচ্ছাকৃত ইসলামবিদ্বেষ। ইসলাম কখনো জঙ্গিধর্ম নয়, একই সঙ্গে ধর্মের নামে শুধু ইসলামেই উগ্রতা আর জঙ্গিবাদ আছে এমন নয়, সব ধর্মেই আছে, তাহলে মুভিতে কেনো ইসলাম আর কালেমার পতাকারই শুধু ব্যবহার?’

পরিচালকের স্পর্ধা সম্পর্কে জানতে চেয়ে মাওলানা বলেন, ‘পরিচালক এই স্পর্ধা কোথায় পেল! নাটক-সিনেমায় আগে থেকেই খারাপ চরিত্র, ধর্ষক, বদমাশ দেখাতে দাড়ি-টুপি চোখে সুরমা লাগায়। আমাদের নীরবতায় এখন ভিলেন চরিত্রে সরাসরি কালিমা ব্যবহার করার সাহস দেখাচ্ছে।’

বিভিন্ন ধর্মেই জঙ্গিবাদ রয়েছে উল্লেখ করে মাওলানা সাইফুল্লাহ বলেন, ‘মনে রাখবেন ইসলামের সঙ্গে জঙ্গিবাদের কোনো সম্পর্ক নেই। প্রকৃত মুসলিম জঙ্গি দূরের কথা, ত্রাশের পক্ষেও থাকতে পারে না। কিন্তু কালেমার পতাকাকে জঙ্গির ট্যাগ লাগিয়ে কারো হাতে ঈমানদাররা তুলেও দিতে পারে না। রিসেন্ট ঘটে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের সন্ত্রাসী হামলা নিয়ে ক্রুশবিদ্ধকরণ মুভি বানিয়ে, খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে দায়ী করে, দেব ও শোয়ার্জনেগারকে নায়ক বানান। আরেকটা বানান লাখ লাখ মুসলিমকে রাখাইন ও পার্শ্ববর্তী দেশের উগ্রবাদীদের দ্বারা হত্যা, যুদ্ধাপরাধ ও বাড়িঘর জালিয়ে দেয়া নিয়ে। সেগুলো এত নিকটে ঘটলেও চোখে পড়ল না কেন? ভণ্ডামি সব ইসলাম আর সুন্নাতি পোশাক নিয়ে, তাই না!’

ইচ্ছাকৃত এসব শয়তানি কারবার দ্রুত বন্ধ করুন। নচেৎ এ নিয়ে শান্তির পরিবেশ নষ্ট হলে সিনেমা কর্তৃপক্ষ দায়- দায়িত্ব এড়াতে পারবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন মাওলানা সাইফুল্লাহ।

Comments

comments

‘নির্বাচন সামনে রেখে পরগাছা গোষ্ঠীর তৎপরতা শুরু হয়েছে’

প্রাথমিকের জন্য ৭৮ কোটি টাকার বই কেনা হচ্ছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!